চোখ

আর কিছুই নয়

অধরা শব্দের বুনট মাত্র

রাত্রিকে ঘুম পড়ায় গান শুনিয়ে

দিবসে কথার ফুলঝুরিতে একাকার।

ক্লান্তি চোখের সহোদরা-

মধুর একাকীত্বে ভাই-বোন

খেলছি এক্কা দোক্কা।

সবই চোখের ইতিহাস

চোখে চোখে কথা বলা

ইশারায় ডেকে নেয়া।

 

কখনো কথাহীন ধ্যানী বৃদ্ধ সে

কখনো উছলে পড়া লাবণ্য

হয়তো মেঘ ঘর বানায় জলে

হয়তো সুর অচেনা বাঁশিতে

কেউ জানে না

কোন শব্দ কোন চোখে খেলে

কোন ভাষায় সে তোমাকে ডাকে

কোন নামে ঘুরিয়ে দেয় চাকা।

তবুও চোখের প্রেমে পড়ি

ঘরহীন শোকে

চোখ দিয়ে বাঁধা থাকি

নিরাকার মোহে।

চোখের কোন ঘর নেই

আমরা ভাই বোন ঘুরে বেড়াই

চোখ আর ক্লান্তি

অদেখা যমজ আকাশ

মেঘের পার্বনে কথা কই।

Comments

comments

14 thoughts on “চোখ

  1. প্রকাশিত হোল কবি সিপাহী রেজার সম্পাদনা ও আসিফ আবরারের সহ-সম্পাদনায় ভাজপত্রের দ্বিতীয় সংখ্যা ! যারা কবিতা আশ্রম নিবেদিত ভাজপত্রটি হাতে হাতে পেতে চান, চলে আসুন আজ বিকেল চারটায় আমাদের সাপ্তাহিক আড্ডায় ! বাংলা একাডেমি সংলগ্ন কালি মন্দিরের মাঠে ! সহজে যোগাযোগের জন্য এখুনি আপনার মুঠোফোনে আমাদের নাম্বারগুলো রাখুন : 01764 101 103 ; 0167 081 45 64 ; 0173 180 5668

    ভাজপত্রটির মুল্য রাখা হয়েছে ৫ টাকা ! কিন্তু আড্ডায় অংশগ্রহনকারীদের জন্য রয়েছে বিশেষ মুল্যছাড় ! সংখ্যাটি উৎসর্গ করা হয়েছে কবি মহাদেব সাহাকে ! কৃতজ্ঞতায় বরাবরের মতই মিঠুন কুমার সমদ্দার ! পৃষ্ঠপোষকতায় জুয়েল আরাফাত এবং লিলুয়া চিরহরিৎ ! ধন্যবাদ সবাইকে !

    দেখা হবে বন্ধুগন…

  2. “তবুও চোখের প্রেমে পড়ি” ji vai, ji… khali ami koile oshikaar koren.

  3. হা, এখন আপনার ব্লগের চেহারা চমৎকার। আমি আগে এই বিষয়ে আপনাকে বলতে চেয়েছিলাম। আশা করি আরো চমৎকার দেখাবে…
    শুভেচ্ছা।

    • ধন্যবাদ সাহাদাত ভাই।
      অনেকদিন ধরে সুন্দর টেমপ্লেট (অবশ্যই বিনা পয়সায়) খুজতেছিলাম। কাল কেমনে যেন ব্যাটে বলে মিলে গেল।
      আমার আইটি পরামর্শকও কইলেন সুন্দর। ব্যাস হইয়া গেলো। একটা লোগো-র অপেক্ষা করছি। দেখি কিভাবে আরো সুন্দর করা যায়।এখনও অনেক কিছু জানার বাকি।
      ব্লগের চেহারা নিয়া কেউ কথা বলবে আশা করছিলাম।আল্লাহ আপনেরে মিলাইয়া দিলেন। শুকরিয়া।
      কোন আইডিয়া মাথায় আসলে শেয়ার কইরেন।

      • আমি ও সাহস দেখাতে চাই নাই…। পারসোলন্যাল ব্লগে এটা আরো কঠিন কাজ।এখন দেখছি আমার আপনাকে আগেই বলা উচিত ছিল! হা হা হা…।

        তবে বার বার ব্লগের চেহারা পালটানোও চলে না। একটাতে মোটামুটি অনেকদিন থাকলে মানুষের মনে তা গেঁথে যায়…

        সামুর নুতন ভার্সান দেখেছেন। পুরা চেহারা এক রেখে একটা চমৎকার পরিবর্তন করে ফেলেছে…।।

        ধন্যবাদ…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *