অষ্টগ্রাম। হাওর।

ধুয়ে যাচ্ছে জুতোর কালি

হাওরের মাছ কোথায় যায় ইলিয়াস কাঞ্চনের মালিকানাধীন প্রভাতী হোটেল কাম স্টুডিওতে দুপুরের খাবারটা সেরে নিলাম। আমি নিলাম কাচকি, অন্যদের জন্য শোল ও বেলে মাছ। শিং মাছের সাইজ নিয়া দারাশিকো ভাইয়ের দারুণ আপত্তি। মাছের দেশে মাছের সাইজ নিয়া অত্যাচার! পরে দেখা গেল, কুলিয়ার চরে যে যে মাছ দেখেছিলাম— তা হাওরের মধ্যিখানের অষ্টগ্রামের দুই হোটেলে পাওয়া যায়…

bike-danarta

বিদ্যুৎ চমকায় শাহবাগে

শাহবাগে গ্রহ নক্ষত্র উপগ্রহ তখন আরো গভীর হয় রাত বিদ্যুৎ চমকায় শাহবাগে বৃষ্টি আসবে ক্ষেতে তখন গ্রহ নক্ষত্র উপগ্রহ নীহারিকা বাড়ি ফেরে বৃষ্টির ভয়ে। Comments comments

jason_bourne-wahedsujan.com

ফাঁদ পাতা দুনিয়ায় জেসন তোমায় দরকার নাই!

জেসন বর্নরে (ম্যাট ডেমন) সিআইএ’র নারীরা সবসময় ভালো পায়। খালি পুরুষ বসগুলো তারে মারতে চায়। এই করে করে শেষ বসটাও মারা গেলে ‘জেসন বর্ন’ সিনেমায়। তাও আবার সিআইএ’র সাইবার অপারেশনস ডিভিশনের প্রধান হিথার লি (এলিসিয়া ভিকান্ডার)-এর হাতে। হিথারের ধারণা আউটল’ হইলেও জেসনরে কাজে লাগানো যাবে। যদিও তিনি পুরোপুরি সন্দেহমুক্ত ছিলেন না। এই জায়গা আইসা মনে…

মোহনগঞ্জ উপজেলা সদর থেকে শুকনো মওসুমে উকিল মুন্সীর বাড়িতে যাওয়ার পথ। এখন হয়তো পাকা হয়ে গেছে। ফেব্রুয়ারি ২০১২।

উকিলের মনচোর

‘ধনু নদীর পশ্চিম পাড়ে, সোনার জালালপুর। সেখানেতে বসত করে, উকিলের মনচোর।’— লাইন কয়টি গীতিকবি ও সাধক উকিল মুন্সীর নামে প্রচারিত। কিন্তু উকিলের একমাত্র সংকলনে (সংগ্রহ, সম্পাদনা : মাহবুব কবির) এ গানের কোনো উল্লেখ নাই। তরুণ বয়সে উকিল মুন্সী বেড়াতে আসেন মোহনগঞ্জ থানার জালালপুর গ্রামে চাচা কাজী আলিম উদ্দিনের বাড়িতে। ধনু নদী পার হতে গিয়ে ওই…

jamuna

শিবের বাড়িতে নজরুল

জায়গাটার নাম শিবালয়। মানে শিবের আলয়। যখন জানলাম নদীও আছে, আনন্দ পেলাম। নদীর নাম স্মরণ করে আনন্দ বাড়ল। পদ্মা! এদিকে তো তারই থাকার কথা।  দেবী মনসার আরেক নাম পদ্মা। যার বাবা শিব, মা পার্বতী। চাঁদ সওদাগরের কাহিনি নিশ্চয় মনে আছে। এ বিদ্রোহী কন্যা পুজো পাওয়ার জন্য কত কিছু করলেন। তো, এই হলো শিবালয়। আর সেখানে…

masud-rana-dhonsho-pahar

বাংলাদেশের শত্রু-মিত্র ও মাসুদ রানা

নির্মাণাধীন জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র ধ্বংসের জন্য রাঙামাটিতে ডিনামাইট পাঠাচ্ছে ইন্ডিয়া। পাকিস্তান কাউন্টার ইন্টেলিজেন্সের (পিসিআই) মাসুদ রানা যাচ্ছেন তা ঠেকাতে। এভাবে আবির্ভাব বাংলাদেশি সাহিত্যের একমাত্র বৈশ্বিক গোয়েন্দার। কাজী আনোয়ার হোসেনের লেখা মাসুদ রানা সিরিজের প্রথম বই প্রকাশ হয় ১৯৬৬ সালে। ৪৪৭তম বই প্রকাশের মাধ্যমে ১৭ মে ৫০ বছর পূর্ণ করছে ঐতিহ্যবাহী সেবা প্রকাশনীর সিরিজটি। এ লেখার বিষয়…